সংযোগ অক্সিজেন সেবা সরবরাহ কর্মসূচী

অক্সিজেন সিলিন্ডারে
বাঁচবে প্রাণ

করোনা যথা সময়ে অক্সিজেন পাওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। সংযোগ কানেক্টিং পিপল ঢাকা শহরের বসবাসরত
মানুষের জন্য অক্সিজেন সেবা সরবরাহ করছে। অক্সিজেন সিলিন্ডার কিংবা কনসেনট্রেটর পেতে যোগাযোগ করুন

সংযোগ উদ্যোগ

অক্সিজেন সিলিন্ডার কিংবা
কনসেনট্রেটর সেবা

কোভিড–১৯–এর সবচেয়ে ভয়াবহ পর্যায়টি হচ্ছে যখন অসুস্থ ব্যক্তির শ্বাস নিতে কষ্ট হয়। এ কারণে কোভিড–১৯ বললেই দমবন্ধকর অবস্থাটিই প্রকট হয়ে ওঠে। বুকের ভেতরটা কেমন ভারী হয়ে আসে। যেন শব্দটি শোনামাত্রই শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। এ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে যাদের অবস্থা গুরুতর হয়, তাদের দ্রুততার সঙ্গে কৃত্রিম শ্বাস–প্রশ্বাস দিতে হয়। আর মধ্যম পর্যায়ের আক্রান্ত ব্যক্তিদেরও অক্সিজেন সরবরাহ করতে হয়। ফলে কোভিড–১৯–এর এই সময়ে অক্সিজেন নিয়ে একধরনের হাহাকার তৈরি হয়েছে। এই হাহাকারের কারণটি মূলত অক্সিজেন সরবরাহ যন্ত্রের স্বল্পতার কারণে সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় কাজ করছে ‘সংযোগ: কানেক্টিং পিপল’ পরিবার। আপনার তাৎক্ষনিক প্রয়োজনে সংযোগ থেকে পেতে পারেন অক্সিজেন সিলিন্ডার কিংবা কনসেনট্রেটর। 

যেভাবে অক্সিজেন সিলিন্ডার সেবা কার্যক্রমে যুক্ত হতে পারেন

১)আপনার বাসাবাড়িতে যদি খালি সিলিন্ডার থাকে,সেটা দান করে আমাদের এ কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে পারেন। আপনার দেয়া সিলিন্ডারে অক্সিজেন ভরে সেটা বিভিন্ন মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হবে। 

২)আপনার ফ্যাক্টরিতে যদি পড়ে থাকে,সেটা দেন (আমাদের অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে কাজ করা টেকনিকাল এক্সপার্ট লোকজন আছেন,তারা ক্লিয়ারেন্স দিলে সেটা ইউজ করা যাবে )(১৫/২০টা ফ্যাক্টরি ইচ্ছে করলেই দিতে পারে)। 

 

৩) সিলিন্ডার তাৎক্ষনিকভাবে পৌঁছে দেয়া একটি বড় চ্যালেঞ্চ। আপনি বেকার হয়ে থাকলে সম্মানির বিনিময়ে কিংবা স্বেচ্ছাশ্রম হিসেবে আমাদের এ প্রোগ্রামে কাজ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেইজ, গ্রুপ কিংবা ই-মেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন। 

৪) সংযোগ শপ থেকে কিংবা অন্য কোন নির্ভরযোগ্য  জায়গা থেকে অক্সিজেন কনসেনট্রেটর কিনে সংযোগ অক্সিজেন সাপোর্ট টিমে দান করতে পারে, যা করোনা দূর্ভোগে অসংখ্য মানুষকে প্রাণ ফিরিয়ে দিতে পারে। সুস্থ করে দিতে পারে। 

যেভাবে নিতে পারবেন অক্সিজেন সিলিন্ডার বা কনসেনট্রেটর মেশিন

১) রোগীর বর্তমান অবস্থা জানাতে হবে (চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ও রোগীর দৃশ্যমান উপসর্গ)। এক্ষেত্রে সংযোগের ফেসবুক গ্রুপ বা পেইজে তথ্য দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। 

২) রোগীর প্রেসক্রিপশন পর্যবেক্ষণ ও অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা যাচাই করবেন সংযোগ  মেডিকেল টিম। একমাত্র সংযোগের ডাক্তারদের সম্মতির পরই অক্সিজেন সিলিন্ডার আপনার বাসায় পাঠিয়ে দেয়া হবে। 

৩) অক্সিজেন সিলিন্ডার পেতে ডকুমেন্ট হিসেবে রোগী ও রোগীর পরিবারের একজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি (ডিজিটাল) , রোগীর প্রেসক্রিপশন ও রোগীর সিলিন্ডার লাগবে, এই মর্মে ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র। 

৪) সিলিন্ডার সর্বোচ্চ তিন দিন বাসায় রাখা যাবে। তবে কারো যদি তিন দিনের বেশি সময় সিলিন্ডার রাখতে হয়, সেক্ষেত্রে নতুন করে সিলিন্ডারের চাহিদাপত্র জমা দিয়ে নতুন সিলিন্ডার নিতে হবে।

সংযোগের ফেসবুক গ্রুপে যুক্ত হোন

Scroll to Top